কাতার ফুটবল বিশ্বকাপের উদ্বোধন হলো রোববার রাতে। মঞ্চে দেখা গেল ঘানেম আল মুফতাহকে। দুই হাতে ভর দিয়ে মঞ্চে এসে অভিনেতা মরগ্যান ফ্রিম্যানের সঙ্গে সঞ্চালনা করলেন বেশ কিছুক্ষণ।

ঘানেম কাতার বিশ্বকাপের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডার। তিনি পবিত্র কুরআন থেকে তিলাওয়াত করলেন। কডাল রিগ্রেশন সিন্ড্রোমে ভোগা ঘানেমের বয়স ২০ বছর। জন্ম থেকেই পা নেই। খুব কম মানুষেরই এই রোগ দেখা যায়। কিন্তু সেসব বাধা টপকে বহু মানুষের অনুপ্রেরণা হয়ে উঠেছেন ঘানেম। তার ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। সেখানে তিনি মানুষকে অনুপ্রেরণা দিতে বিভিন্ন কথা বলেন। তার আইসক্রিমের ব্যবসাও রয়েছে।

ফ্রিম্যানের সঙ্গে রোববার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতালেন ঘানেম। তিনি পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত শোনালেন উপস্থিত দর্শকদের এবং সারাবিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের। কাতারের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হলো সেই অনুষ্ঠানে। প্রথমেই দেখা যায়, কাতারের শাসক শেখ মহম্মদ বিন রশিদ আল-মাখতুমকে।

প্রথমে গানের অনুষ্ঠান হয়। তার পরেই বিশ্বকাপে ঐক্যের বার্তা শোনাতে শোনাতে হাজির হন হলিউডি অভিনেতা মরগ্যান ফ্রিম্যান। তার সঙ্গে মঞ্চে প্রবেশ করেন বিশেষভাবে সক্ষম ঘানেম। গাইলেন কোরীয় ব্যান্ড বিটিএসের প্রধান গায়ক জান কুক। তার সঙ্গেই এলেন কাতারের গায়ক ফাহাদ আল-কুবায়সি। এর আগের বিশ্বকাপে যে যে গানগুলো গাওয়া হয়েছিল, সেগুলো ফিরে এলো। ১৯৯৮ বিশ্বকাপে রিকি মার্টিনের গাওয়া ‘ওলে, ওলে’ থেকে ২০১০ বিশ্বকাপে শাকিরার গাওয়া ‘ওয়াকা, ওয়াকা’, সবই শোনা গেল। গত বিশ্বকাপগুলোকে যেসব মাসকাট ছিল, তাদেরও একে একে হাজির করানো হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *